ঢাকা ১২:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

লোহাগড়ার আলোচিত সেই ইউএনওকে বদলি

নড়াইল প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০২:৩৫:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪ ৯৯ বার পড়া হয়েছে

সংগৃহীত

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

UNO of Lohagara :

নড়াইলের লোহাগড়ার আলোচিত সেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অনিমেষ বিশ্বাসকে বদলি করা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন-২ শাখার স্বারক নং ০৫.০০.০০০০.১৩৯.১৯.০০৯.২০.৭১। উপসচিব ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পির স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাকে লোহাগড়ার ইউএনও থেকে বরগুনা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে বদলি করা হয়েছে। অনিমেষ বিশ্বাস গভীর রাতে কর্মস্থল ত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১৮ মার্চ) নড়াইল জেলা প্রশাসকের ছাড়পত্র পেয়ে ওইদিন রাতেই অনিমেষ বিশ্বাস পরিবার নিয়ে লোহাগড়া থেকে সরকারি গাড়িতে করে কর্মস্থল ত্যাগ করেন।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিবের এক আদেশে অনিমেষ বিশ্বাসকে লোহাগড়ার ইউএনও থেকে বরগুনা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

অশ্লীল ভিডিও ভাইরালে হুমকি পেয়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দেওয়ার ঘটনায় গত কয়েকদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন ইউএনও অনিমেষ বিশ্বাস।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে হোয়াটস অ্যাপে কল করে বলে, একটি অশ্লীল ভিডিও আছে তাদের কাছে। এর জন্য ১০ লাখ টাকা না দিলে ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করে দেওয়া হবে বলে ভয় দেখায়। এভাবে একাধিকবার অজ্ঞাতনামা চাঁদাবাজরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর মোবাইলফোনে চাঁদা দাবি করে। ভয়ে ইউএনওর স্ত্রী বিপাশা বিশ্বাস হুমকিদাতার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বিভিন্ন সময়ে ১০ লাখ টাকা দেন।

এ ঘটনায় গত ১২ মার্চ লোহাগড়া থানায় ইউএনওর দেহরক্ষী আকাশ বিশ্বাসের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আসামিদের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন বিপাশা বিশ্বাস। সেই মামলায় পুলিশ আকাশ বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গত ১৪ মার্চ কারাগারে পাঠায়।

এসব কারণে গত কয়েকদিন ধরে একপ্রকার লোকচক্ষুর আড়ালেই ছিলেন ইউএনও ও তার পরিবার। অবশেষে জেলা প্রশাসকের ছাড়পত্র পেয়ে তিনি কর্মস্থল ত্যাগ করলেন।

/শিল্পী/

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

লোহাগড়ার আলোচিত সেই ইউএনওকে বদলি

আপডেট সময় : ০২:৩৫:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪

UNO of Lohagara :

নড়াইলের লোহাগড়ার আলোচিত সেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অনিমেষ বিশ্বাসকে বদলি করা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন-২ শাখার স্বারক নং ০৫.০০.০০০০.১৩৯.১৯.০০৯.২০.৭১। উপসচিব ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পির স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাকে লোহাগড়ার ইউএনও থেকে বরগুনা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে বদলি করা হয়েছে। অনিমেষ বিশ্বাস গভীর রাতে কর্মস্থল ত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১৮ মার্চ) নড়াইল জেলা প্রশাসকের ছাড়পত্র পেয়ে ওইদিন রাতেই অনিমেষ বিশ্বাস পরিবার নিয়ে লোহাগড়া থেকে সরকারি গাড়িতে করে কর্মস্থল ত্যাগ করেন।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিবের এক আদেশে অনিমেষ বিশ্বাসকে লোহাগড়ার ইউএনও থেকে বরগুনা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

অশ্লীল ভিডিও ভাইরালে হুমকি পেয়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দেওয়ার ঘটনায় গত কয়েকদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন ইউএনও অনিমেষ বিশ্বাস।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে হোয়াটস অ্যাপে কল করে বলে, একটি অশ্লীল ভিডিও আছে তাদের কাছে। এর জন্য ১০ লাখ টাকা না দিলে ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করে দেওয়া হবে বলে ভয় দেখায়। এভাবে একাধিকবার অজ্ঞাতনামা চাঁদাবাজরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর মোবাইলফোনে চাঁদা দাবি করে। ভয়ে ইউএনওর স্ত্রী বিপাশা বিশ্বাস হুমকিদাতার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বিভিন্ন সময়ে ১০ লাখ টাকা দেন।

এ ঘটনায় গত ১২ মার্চ লোহাগড়া থানায় ইউএনওর দেহরক্ষী আকাশ বিশ্বাসের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আসামিদের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন বিপাশা বিশ্বাস। সেই মামলায় পুলিশ আকাশ বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গত ১৪ মার্চ কারাগারে পাঠায়।

এসব কারণে গত কয়েকদিন ধরে একপ্রকার লোকচক্ষুর আড়ালেই ছিলেন ইউএনও ও তার পরিবার। অবশেষে জেলা প্রশাসকের ছাড়পত্র পেয়ে তিনি কর্মস্থল ত্যাগ করলেন।

/শিল্পী/