ঢাকা ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল টেকনাফে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৪৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩ ১৪৯ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

গণহত্যা ও নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেওয়া লাখ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিককে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে নানা টালবাহানার পর অবশেষে একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে মিয়ানমার। প্রতিনিধি দলটি বাংলাদেশের দেওয়া রোহিঙ্গাদের তালিকা যাচাই-বাছাই করবে।

বুধবার (১৫ মার্চ) সকালে মিয়ানমারের ২২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল কক্সবাজারের টেকনাফে আসে।

সকাল ৯টার পর টেকনাফ দমদমিয়া ট্রানজিট ক্যাম্পে এসে পৌঁছায় প্রতিনিধি দল। তাদের সঙ্গে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দলের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। এতে নেতৃত্ব দেবেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মিজানুর রহমান। বাংলাদেশের পাঠানো তালিকা থেকে মিয়ানমার যে সমস্ত রোহিঙ্গাকে তাদের নাগরিক হিসেবে যাচাই-বাছাই করে ফিরতি তালিকা দিয়েছিল তা নিয়ে ওই বৈঠকে আলোচনা হবে।

বাংলাদেশ মিয়ানমারকে আট লাখ ৩০ হাজারের মতো রোহিঙ্গার তালিকা দিয়েছিল। সেখান থেকে মাত্র ৬০ হাজারের মতো রোহিঙ্গাকে বেছে নিয়েছে মিয়ানমার। ওই তালিকা ধরে এর আগেও দুই বার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরুর কথা থাকলেও রোহিঙ্গাদের আপত্তিতে তা সম্ভব হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল টেকনাফে

আপডেট সময় : ০৮:৪৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

গণহত্যা ও নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেওয়া লাখ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিককে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে নানা টালবাহানার পর অবশেষে একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে মিয়ানমার। প্রতিনিধি দলটি বাংলাদেশের দেওয়া রোহিঙ্গাদের তালিকা যাচাই-বাছাই করবে।

বুধবার (১৫ মার্চ) সকালে মিয়ানমারের ২২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল কক্সবাজারের টেকনাফে আসে।

সকাল ৯টার পর টেকনাফ দমদমিয়া ট্রানজিট ক্যাম্পে এসে পৌঁছায় প্রতিনিধি দল। তাদের সঙ্গে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দলের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। এতে নেতৃত্ব দেবেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মিজানুর রহমান। বাংলাদেশের পাঠানো তালিকা থেকে মিয়ানমার যে সমস্ত রোহিঙ্গাকে তাদের নাগরিক হিসেবে যাচাই-বাছাই করে ফিরতি তালিকা দিয়েছিল তা নিয়ে ওই বৈঠকে আলোচনা হবে।

বাংলাদেশ মিয়ানমারকে আট লাখ ৩০ হাজারের মতো রোহিঙ্গার তালিকা দিয়েছিল। সেখান থেকে মাত্র ৬০ হাজারের মতো রোহিঙ্গাকে বেছে নিয়েছে মিয়ানমার। ওই তালিকা ধরে এর আগেও দুই বার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরুর কথা থাকলেও রোহিঙ্গাদের আপত্তিতে তা সম্ভব হয়নি।