ঢাকা ০৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

বিয়ে করতে না পেরে কনের ছোট ভাইকে অপহরণ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:২৬:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০২৩ ১২০ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে বোনকে বিয়ে করতে না পেরে ছোট ভাইকে অপহরণ করেছে বলে জানা গেছে। ওই কিশোরকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) দুপুরে শরীয়তপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সভাকক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) ভাস্কর সাহা এক প্রেস ব্রিফিং এসব তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃত রাসেল বেপারী (২৯) মাদারীপুর জেলার কালকিনি থানার খাসেরহাট এলাকার মো. মহিউদ্দিন লাটু বেপারীর ছেলে।

আর উদ্ধার হওয়া কিশোর মিরাজুল ইসলাম (১২) শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার বড় কালিনগর গ্রামের মো. মিজানুর রহমান সুমনের ছেলে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার বড় কালিনগর এলাকায় সম্প্রতি এক তরুণীকে বিয়ে করতে চায় মাদারীপুরের খাসেরহাট এলাকার রাসেল বেপারী।

ওই তরুণী বিয়েতে রাজি না হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে তার ছোট ভাই মিরাজুল ইসলামকে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে অপহরণ করে রাসেল। পরে বুধবার রাসেলের কাছে ওই তরুণীকে বিয়ে দেবে বলে পরিবার সেজে মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে ফাঁদপাতে পুলিশ। রাসেল তার নিজ বাড়ি মাদারীপুরের কালকিনির খাসেরহাটে ওই তরুণীকে নিয়ে যেতে বলেন।

পরে দুপুরে খাসেরহাট রাসেলের বাড়ি থেকে মিরাজুলকে উদ্ধার করা হয়। আর খাসেরহাটের পাশের এলাকা মধ্যেরচর এলাকা থেকে রাসেল বেপারীকে আটক করে পুলিশ।

রাসেলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় পুলিশকে মারধরসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে মিরাজুলের বাবা মিজানুর রহমান বাদি হয়ে গোসাইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আদালতের মাধ্যমে রাসেলকে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানানো হয়।

এসময় সহকারী পুলিশ সুপার সবীর কুমার সাহা, গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা জানান, রাসেলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় পুলিশকে মারধরসহ একাধিক মামলা রয়েছে। আর এই মামলটির তদন্ত শেষ করে দ্রুততম সময় আদালতে অভিযোগ পত্রটি দাখিল করবে বলে জানান তিনি।

রইস/২

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বিয়ে করতে না পেরে কনের ছোট ভাইকে অপহরণ

আপডেট সময় : ০১:২৬:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০২৩

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে বোনকে বিয়ে করতে না পেরে ছোট ভাইকে অপহরণ করেছে বলে জানা গেছে। ওই কিশোরকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) দুপুরে শরীয়তপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সভাকক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) ভাস্কর সাহা এক প্রেস ব্রিফিং এসব তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃত রাসেল বেপারী (২৯) মাদারীপুর জেলার কালকিনি থানার খাসেরহাট এলাকার মো. মহিউদ্দিন লাটু বেপারীর ছেলে।

আর উদ্ধার হওয়া কিশোর মিরাজুল ইসলাম (১২) শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার বড় কালিনগর গ্রামের মো. মিজানুর রহমান সুমনের ছেলে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার বড় কালিনগর এলাকায় সম্প্রতি এক তরুণীকে বিয়ে করতে চায় মাদারীপুরের খাসেরহাট এলাকার রাসেল বেপারী।

ওই তরুণী বিয়েতে রাজি না হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে তার ছোট ভাই মিরাজুল ইসলামকে দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে অপহরণ করে রাসেল। পরে বুধবার রাসেলের কাছে ওই তরুণীকে বিয়ে দেবে বলে পরিবার সেজে মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে ফাঁদপাতে পুলিশ। রাসেল তার নিজ বাড়ি মাদারীপুরের কালকিনির খাসেরহাটে ওই তরুণীকে নিয়ে যেতে বলেন।

পরে দুপুরে খাসেরহাট রাসেলের বাড়ি থেকে মিরাজুলকে উদ্ধার করা হয়। আর খাসেরহাটের পাশের এলাকা মধ্যেরচর এলাকা থেকে রাসেল বেপারীকে আটক করে পুলিশ।

রাসেলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় পুলিশকে মারধরসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে মিরাজুলের বাবা মিজানুর রহমান বাদি হয়ে গোসাইরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আদালতের মাধ্যমে রাসেলকে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানানো হয়।

এসময় সহকারী পুলিশ সুপার সবীর কুমার সাহা, গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা জানান, রাসেলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় পুলিশকে মারধরসহ একাধিক মামলা রয়েছে। আর এই মামলটির তদন্ত শেষ করে দ্রুততম সময় আদালতে অভিযোগ পত্রটি দাখিল করবে বলে জানান তিনি।

রইস/২