ঢাকা ০১:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

ত্রিশাল পৌর মেয়র হলেন যুবদল নেতা আমিন

ময়মনসিংহ প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৮:২৬:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪ ৯৪ বার পড়া হয়েছে

সংগৃহীত

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

Trishal :

ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভার উপনির্বাচনে বর্তমান সংসদ সদস্যের সহধর্মীনি শামীমা আক্তারকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন উপজেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক আমিন সরকার।

শনিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় ত্রিশাল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা জুয়েল আহমেদ এ তথ‍্য নিশ্চিত করেছেন।

নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে আমিন সরকার পেয়েছেন ১০ হাজার ২৮৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের বতর্মান সংসদ সদস্য এবিএম আনিসুজ্জামান আনিসের স্ত্রী শামীমা আক্তার জগ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৩৪৫ ভোট।

এর আগে এদিন সকাল ৮ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে এই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

একাধিক ভোটার জানান, এবার ইভিএমের মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে জাল ভোট হওয়ার কোনো আশঙ্কা ছিল না। চাপ দিতেই কম্পিউটারে সব কিছু বলে দিচ্ছে। সহজেই ভোট দিয়েছি।

১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ত্রিশাল পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ১৪টি ভোটকেন্দ্রে ভোট হয়েছে। পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ২৯ হাজার ১৮০ জন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা জুয়েল আহমেদ বলেন, দিনভর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট শেষ হয়েছে। কোথাও কোনো বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া যায়নি। ভোটগ্রহণ শেষে প্রিজাইডিং অফিসার থেকে প্রাপ্ত ১৪টি ভোট কেন্দ্রের কাস্টিং ভোটের সংখ্যা ১৩ হাজার ৬৪ ভোট। যা মোট ভোটের প্রায় ৪৪.৭৭ শতাংশ।

প্রসঙ্গত, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসন থেকে অংশ নিতে ত্রিশাল পৌর মেয়রের পদ থেকে এবিএম আনিছুজ্জামান পদত্যাগ করেন। পরে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। যে কারণে এ পৌর সভার মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

/শিল্পী/

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ত্রিশাল পৌর মেয়র হলেন যুবদল নেতা আমিন

আপডেট সময় : ০৮:২৬:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪

Trishal :

ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভার উপনির্বাচনে বর্তমান সংসদ সদস্যের সহধর্মীনি শামীমা আক্তারকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন উপজেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক আমিন সরকার।

শনিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় ত্রিশাল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা জুয়েল আহমেদ এ তথ‍্য নিশ্চিত করেছেন।

নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে আমিন সরকার পেয়েছেন ১০ হাজার ২৮৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের বতর্মান সংসদ সদস্য এবিএম আনিসুজ্জামান আনিসের স্ত্রী শামীমা আক্তার জগ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৩৪৫ ভোট।

এর আগে এদিন সকাল ৮ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে এই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

একাধিক ভোটার জানান, এবার ইভিএমের মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে জাল ভোট হওয়ার কোনো আশঙ্কা ছিল না। চাপ দিতেই কম্পিউটারে সব কিছু বলে দিচ্ছে। সহজেই ভোট দিয়েছি।

১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ত্রিশাল পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ১৪টি ভোটকেন্দ্রে ভোট হয়েছে। পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ২৯ হাজার ১৮০ জন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা জুয়েল আহমেদ বলেন, দিনভর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট শেষ হয়েছে। কোথাও কোনো বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া যায়নি। ভোটগ্রহণ শেষে প্রিজাইডিং অফিসার থেকে প্রাপ্ত ১৪টি ভোট কেন্দ্রের কাস্টিং ভোটের সংখ্যা ১৩ হাজার ৬৪ ভোট। যা মোট ভোটের প্রায় ৪৪.৭৭ শতাংশ।

প্রসঙ্গত, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসন থেকে অংশ নিতে ত্রিশাল পৌর মেয়রের পদ থেকে এবিএম আনিছুজ্জামান পদত্যাগ করেন। পরে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। যে কারণে এ পৌর সভার মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

/শিল্পী/