ঢাকা ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

কমলনগরে সেহরিতে চেতনানাশক খাইয়ে লুট

লক্ষ্মীপুর প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০২:৪৭:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০২৪ ১১৬ বার পড়া হয়েছে

সংগৃহীত

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

Komolnogor :

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে একই পরিবারের ৩ সদস্যকে সেহরিতে চেতনানাশক মেশানো খাবার খাইয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ সর্বস্ব লুট করে নিয়েছে চোর চক্র।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ভোর রাতে উপজেলার চরমার্টিন ইউনিয়নের মতিরহাট এলাকার পাটোয়ারি বাড়িতে লুটের এ ঘটনাট ঘটে।

পরে ওই পরিবারের সদস্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে স্বজনরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

স্থানীয় বাসিন্দা ও স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার ভোর রাতে সেহরির খাবার খেয়ে অচেতন হয়ে ঘুমিয়ে পড়েন মন্নান পাটোয়ারি পরিবারের লোকজন। সকালে তাদের উঠতে দেরি দেখে প্রতিবেশিরা ডাকাডাকি করেন। কিন্তু তারা সাড়া না দেওয়ায় প্রতিবেশীরা অসুস্থ অবস্থায় মান্নান পাটোয়ারি, তার স্ত্রী কহিনুর বেগম ও পুত্রবধূ শারমিন আক্তারকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানান, ঘরের আলমারি ও অন্যান্য আসবাবপত্র তছনছ করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ সবকিছু লুটপাট করা হয়েছে।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চেতনানাশক ওষুধ প্রয়োগ করায় এ ঘটনা ঘটেছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সবাই শঙ্কামুক্ত।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৌহিদুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

/শিল্পী/

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

কমলনগরে সেহরিতে চেতনানাশক খাইয়ে লুট

আপডেট সময় : ০২:৪৭:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০২৪

Komolnogor :

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে একই পরিবারের ৩ সদস্যকে সেহরিতে চেতনানাশক মেশানো খাবার খাইয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ সর্বস্ব লুট করে নিয়েছে চোর চক্র।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) ভোর রাতে উপজেলার চরমার্টিন ইউনিয়নের মতিরহাট এলাকার পাটোয়ারি বাড়িতে লুটের এ ঘটনাট ঘটে।

পরে ওই পরিবারের সদস্যদের অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে স্বজনরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

স্থানীয় বাসিন্দা ও স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার ভোর রাতে সেহরির খাবার খেয়ে অচেতন হয়ে ঘুমিয়ে পড়েন মন্নান পাটোয়ারি পরিবারের লোকজন। সকালে তাদের উঠতে দেরি দেখে প্রতিবেশিরা ডাকাডাকি করেন। কিন্তু তারা সাড়া না দেওয়ায় প্রতিবেশীরা অসুস্থ অবস্থায় মান্নান পাটোয়ারি, তার স্ত্রী কহিনুর বেগম ও পুত্রবধূ শারমিন আক্তারকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানান, ঘরের আলমারি ও অন্যান্য আসবাবপত্র তছনছ করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ সবকিছু লুটপাট করা হয়েছে।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চেতনানাশক ওষুধ প্রয়োগ করায় এ ঘটনা ঘটেছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সবাই শঙ্কামুক্ত।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৌহিদুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

/শিল্পী/