ঢাকা ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

ডাকাত সন্দেহে গ্রামবাসীর গণপিটুনি

সোনারগাঁয়ে চারজন নিহত ও একজন আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৬:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪ ৮৭ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ফটো

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
Four people were killed in Sonargaon :

ডাকাত সন্দেহে গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে চারজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে।

গতকাল রোববার (১৮ মার্চ) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী গ্রামের চকে এ ঘটনা ঘটে।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। আহত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ আলী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার (১৮ মার্চ) রাত একটার দিকে বাঘরী বিলে কয়েকজন অপরিচিত ব্যক্তিকে দেখা যায়। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় প্রথমে মসজিদের মাইকে ‘ডাকাত পড়েছে’ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। গ্রামবাসী তখন চারদিক থেকে তাদের ঘিরে ফেলেন। তারা পালানোর জন্য বিলের পানিতে ঝাঁপ দেন।

পরে স্থানীয় লোকজন কয়েকজনকে আটক করে পিটুনি দেন। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ-সার্কেল) শেখ বিল্লাল হোসাইন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। মরদেহগুলো নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যা সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে বাঘরী গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আহত ব্যক্তি ডাকাত দলের সদস্য বলে স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, তারা সাতজন বিলের পাড়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। সেখানে আরও তিনজনের আসার কথা ছিল।

এম.নাসির/১৮

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ডাকাত সন্দেহে গ্রামবাসীর গণপিটুনি

সোনারগাঁয়ে চারজন নিহত ও একজন আহত

আপডেট সময় : ০১:৫৬:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪
Four people were killed in Sonargaon :

ডাকাত সন্দেহে গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে চারজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে।

গতকাল রোববার (১৮ মার্চ) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী গ্রামের চকে এ ঘটনা ঘটে।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। আহত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ আলী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার (১৮ মার্চ) রাত একটার দিকে বাঘরী বিলে কয়েকজন অপরিচিত ব্যক্তিকে দেখা যায়। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় প্রথমে মসজিদের মাইকে ‘ডাকাত পড়েছে’ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। গ্রামবাসী তখন চারদিক থেকে তাদের ঘিরে ফেলেন। তারা পালানোর জন্য বিলের পানিতে ঝাঁপ দেন।

পরে স্থানীয় লোকজন কয়েকজনকে আটক করে পিটুনি দেন। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ-সার্কেল) শেখ বিল্লাল হোসাইন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। মরদেহগুলো নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যা সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে বাঘরী গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আহত ব্যক্তি ডাকাত দলের সদস্য বলে স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, তারা সাতজন বিলের পাড়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। সেখানে আরও তিনজনের আসার কথা ছিল।

এম.নাসির/১৮