ঢাকা ১১:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

যশোরে ৩২টি মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে

ডেস্ক প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১২:০০:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪ ৯৩ বার পড়া হয়েছে

স্বজনদের আহাজারি

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

Jessore, Hacked to death :  যশোরে ৩২টি মামলার শীর্ষ সন্ত্রাসী রমজান আলীকে (৩০) অন্য সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। শুক্রবার (৮ মার্চ) রাত ১০টার দিকে নগরীর রেলগেট পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রমজান আলী রেলগেট পশ্চিম পাড়া এলাকার ফয়েজ শেখের ছেলে। পুলিশ জানায়, রমজান শেখ যশোরের কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে হত্যা-অস্ত্র-বিস্ফোরকসহ ২৫টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে অস্ত্র মামলা ৭টি, বিস্ফোরক মামলা ৫টি, হত্যা মামলা ১টি, ডাকাতি ১টি, হত্যাচেষ্টার ৪টি এবং মাদকসহ ৭টি মামলা রয়েছে।

নিহত রমজানের পরিবারের সদস্যরা জানান, গতকাল রাত ১০টার দিকে রমজান আলী বাড়ির সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় চোরমারা দীঘি পাড় এলাকার পিচ্চি রাজা নামে এক ব্যক্তি তাকে কেটে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ খন্দকার রেজওয়ান জামান জানান, রাত ১০টার পর রমজানকে জরুরি বিভাগে আনা হয়। রমজান আলীর বুকে ও পিঠে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহতের স্ত্রী পপি জানান, পিচ্চি রাজার সঙ্গে তার স্বামী রমজানের দীর্ঘদিন ধরে শত্রুতা ছিল। মুরগির খামার নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এ কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, রেলগেট পশ্চিম পাড়ার রমজান আলী এলাকায় সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত। তার নামে হত্যা, মাদকসহ ডজনখানেক মামলা রয়েছে। ২০২২ সালের ১ আগস্ট র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে। সে সময় র‌্যাব তাকে শীর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করে। কয়েক মাস আগে জামিনে মুক্তি পান রমজান। ডিসচার্জের পর আবার পুরনো পেশায় ফিরে আসেন।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) জুয়েল ইমরান জানান, রমজান আলী নামে এক শীর্ষ সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতের বিরুদ্ধে ৩২টি মামলা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

যশোরে ৩২টি মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে

আপডেট সময় : ১২:০০:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪

Jessore, Hacked to death :  যশোরে ৩২টি মামলার শীর্ষ সন্ত্রাসী রমজান আলীকে (৩০) অন্য সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। শুক্রবার (৮ মার্চ) রাত ১০টার দিকে নগরীর রেলগেট পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রমজান আলী রেলগেট পশ্চিম পাড়া এলাকার ফয়েজ শেখের ছেলে। পুলিশ জানায়, রমজান শেখ যশোরের কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে হত্যা-অস্ত্র-বিস্ফোরকসহ ২৫টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে অস্ত্র মামলা ৭টি, বিস্ফোরক মামলা ৫টি, হত্যা মামলা ১টি, ডাকাতি ১টি, হত্যাচেষ্টার ৪টি এবং মাদকসহ ৭টি মামলা রয়েছে।

নিহত রমজানের পরিবারের সদস্যরা জানান, গতকাল রাত ১০টার দিকে রমজান আলী বাড়ির সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় চোরমারা দীঘি পাড় এলাকার পিচ্চি রাজা নামে এক ব্যক্তি তাকে কেটে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ খন্দকার রেজওয়ান জামান জানান, রাত ১০টার পর রমজানকে জরুরি বিভাগে আনা হয়। রমজান আলীর বুকে ও পিঠে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহতের স্ত্রী পপি জানান, পিচ্চি রাজার সঙ্গে তার স্বামী রমজানের দীর্ঘদিন ধরে শত্রুতা ছিল। মুরগির খামার নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এ কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, রেলগেট পশ্চিম পাড়ার রমজান আলী এলাকায় সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত। তার নামে হত্যা, মাদকসহ ডজনখানেক মামলা রয়েছে। ২০২২ সালের ১ আগস্ট র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে। সে সময় র‌্যাব তাকে শীর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করে। কয়েক মাস আগে জামিনে মুক্তি পান রমজান। ডিসচার্জের পর আবার পুরনো পেশায় ফিরে আসেন।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) জুয়েল ইমরান জানান, রমজান আলী নামে এক শীর্ষ সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতের বিরুদ্ধে ৩২টি মামলা রয়েছে।