ঢাকা ১২:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

ব্যবসায়ীদের কড়া হুঁশিয়ারি বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১২:৩৮:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪ ১১৫ বার পড়া হয়েছে

সংগৃহীত

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

warning to traders :

ব্যবসায়ীদের কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, রমজান মাসে সবকিছু সুলভমূল্যে বিক্রি করা উচিত । কিন্তু দেখা যায় রমজান এলেই এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী মানুষকে জিম্মি করে অবৈধ উপার্জনের পথ বেছে নেয়। তাদেরকে সতর্ক করে বললাম, পবিত্র রমজান মাসে বাজার কারসাজি করে মানুষকে জিম্মি করলে কেউ রেহাই পাবে না।

রবিবার (১০ মার্চ) সকালে শ্যামলী মাঠের সামনে রমজান উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী সুলভ মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ীদেরকে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, আমি স্থানীয় সরকার ও সমবায়মন্ত্রী থাকাকালে বাজারের সম্পর্কে জানতাম। বাজার সম্পর্কে আমার ধারণা হয়েছে। কুমিল্লা নিমসার বাজার থেকে আমরা যখন ১০ টাকা দিয়ে কৃষকের কাছ থেকে একটা ফুলকপি কিনি সেটি যখন কারওয়ান বাজার হয়ে নিউমার্কেট বা টাউন হল মার্কেট আসে তখন এটি ৫০ টাকা হয়ে যায়। কৃষক পেল ১০ টাকা আর বিক্রি হলো ৫০ টাকা মাঝখানে যে বিরাট ব্যবধান যে শুভঙ্করের ফাঁকি। এটা আশ্চর্যজনক।

পাটমন্ত্রী বলেন, আমাদেরকে জনগণ দীর্ঘদিন পর্যন্ত ক্ষমতায় রেখেছেন। প্রধানমন্ত্রী বাজারদর নিয়ে বারবার সতর্ক করেছেন। বারবার কঠিন বার্তা দিয়েছেন। তারপরও যারা বাজারদরকে নিয়ন্ত্রণে আনছে না, তাদেরকে আমি চ্যালেঞ্জ দিয়েছি যে, পুরো রমজান মাস সুলভমূল্যে পণ্যসামগ্রী বেচাবিক্রির। সুলভ মূল্যে বিক্রয় কেন্দ্র চালু করেছি। এটি রমজানজুড়ে চলবে।

অন্যান্য সংসদ সদস্যদেরকে অনুরোধ করে তিনি বলেন, বাজার নিয়ন্ত্রণের একমাত্র উপায় হলো সুলভ মূল্যে নিত্যপণ্য বিক্রয় কেন্দ্র খোলা। যে জনগণ ১৫ বছর আমাদেরকে ক্ষমতা রেখেছে, সেই জনগণের জন্য আমাদেরকে একটি মাস পরিশ্রম করে দেখাতে হবে। আমরা জনগণের জন্য, জনগণ আমাদের জন্য।

‌আমাদের দেশে মানুষের নৈতিকতা ও মানবিকতার পরিবর্তন হয়ে গেছে। রমজান মাসে বিভিন্ন মুসলিম দেশে বাজারদর কমে যায়। আমার দেশের ব্যবসায়ীরা রমজানে মানুষকে জিম্মি করে উপার্জনের পথ বেছে নেয়।

/শিল্পী/

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ব্যবসায়ীদের কড়া হুঁশিয়ারি বস্ত্র ও পাট মন্ত্রীর

আপডেট সময় : ১২:৩৮:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪

warning to traders :

ব্যবসায়ীদের কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, রমজান মাসে সবকিছু সুলভমূল্যে বিক্রি করা উচিত । কিন্তু দেখা যায় রমজান এলেই এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী মানুষকে জিম্মি করে অবৈধ উপার্জনের পথ বেছে নেয়। তাদেরকে সতর্ক করে বললাম, পবিত্র রমজান মাসে বাজার কারসাজি করে মানুষকে জিম্মি করলে কেউ রেহাই পাবে না।

রবিবার (১০ মার্চ) সকালে শ্যামলী মাঠের সামনে রমজান উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী সুলভ মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ীদেরকে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, আমি স্থানীয় সরকার ও সমবায়মন্ত্রী থাকাকালে বাজারের সম্পর্কে জানতাম। বাজার সম্পর্কে আমার ধারণা হয়েছে। কুমিল্লা নিমসার বাজার থেকে আমরা যখন ১০ টাকা দিয়ে কৃষকের কাছ থেকে একটা ফুলকপি কিনি সেটি যখন কারওয়ান বাজার হয়ে নিউমার্কেট বা টাউন হল মার্কেট আসে তখন এটি ৫০ টাকা হয়ে যায়। কৃষক পেল ১০ টাকা আর বিক্রি হলো ৫০ টাকা মাঝখানে যে বিরাট ব্যবধান যে শুভঙ্করের ফাঁকি। এটা আশ্চর্যজনক।

পাটমন্ত্রী বলেন, আমাদেরকে জনগণ দীর্ঘদিন পর্যন্ত ক্ষমতায় রেখেছেন। প্রধানমন্ত্রী বাজারদর নিয়ে বারবার সতর্ক করেছেন। বারবার কঠিন বার্তা দিয়েছেন। তারপরও যারা বাজারদরকে নিয়ন্ত্রণে আনছে না, তাদেরকে আমি চ্যালেঞ্জ দিয়েছি যে, পুরো রমজান মাস সুলভমূল্যে পণ্যসামগ্রী বেচাবিক্রির। সুলভ মূল্যে বিক্রয় কেন্দ্র চালু করেছি। এটি রমজানজুড়ে চলবে।

অন্যান্য সংসদ সদস্যদেরকে অনুরোধ করে তিনি বলেন, বাজার নিয়ন্ত্রণের একমাত্র উপায় হলো সুলভ মূল্যে নিত্যপণ্য বিক্রয় কেন্দ্র খোলা। যে জনগণ ১৫ বছর আমাদেরকে ক্ষমতা রেখেছে, সেই জনগণের জন্য আমাদেরকে একটি মাস পরিশ্রম করে দেখাতে হবে। আমরা জনগণের জন্য, জনগণ আমাদের জন্য।

‌আমাদের দেশে মানুষের নৈতিকতা ও মানবিকতার পরিবর্তন হয়ে গেছে। রমজান মাসে বিভিন্ন মুসলিম দেশে বাজারদর কমে যায়। আমার দেশের ব্যবসায়ীরা রমজানে মানুষকে জিম্মি করে উপার্জনের পথ বেছে নেয়।

/শিল্পী/