ঢাকা ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

আমরা চাই বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক : তথ্যমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:২১:২৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩ ১০৬ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচন কমিশনের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে বলে জানিয়েছেন, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক থাকবে। আমরা চাই বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক।

রোববার (৫ মার্চ) তথ্য ভবনে টেলিভিশনের বার্তা প্রধানদের সাথে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের সময় সবচেয়ে বেশি টেলিভিশনের বিস্তার ঘটেছে। রাষ্ট্রের বিকাশ সম্ভব না গণমাধ্যমের বিস্তার ছাড়া।

তিনি বলেন, সরকার কঠোর হাতে করোনা পরবর্তী দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা করার জন্য কাজ করেছে। সেটাতে সফলও হয়েছে, সেগুলো আপনাদের মাধ্যমেই দেশের মানুষ জানবে। পত্রিকার মত সম্প্রচার মাধ্যমে ওয়েজ বোর্ড করা হবে না। সম্প্রচার মাধ্যমের কর্মীদের জন্য যে গণমাধ্যমকর্মী আইন করা হচ্ছে সেখানেই তাদের সুরক্ষার বিষয়গুলো থাকবে।

সরকারের উন্নয়নের কথা মানুষের কাছে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের সহযোগীতা চেয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের ভুলত্রুটি যেগুলো আছে সেগুলোর পাশাপাশি সরকারের উন্নয়নের কথাও গণমাধ্যমে তুলে ধরতে হবে। বিএনপি যেভাবে একতরফা সরকারের সমালোচনা করছে এতে দেশের মানুষের কাছে ভুল মেসেজ যায়। বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যেও সরকার দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখেছে।

রইস/৫

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আমরা চাই বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক : তথ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৯:২১:২৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচন কমিশনের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে বলে জানিয়েছেন, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক থাকবে। আমরা চাই বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক।

রোববার (৫ মার্চ) তথ্য ভবনে টেলিভিশনের বার্তা প্রধানদের সাথে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের সময় সবচেয়ে বেশি টেলিভিশনের বিস্তার ঘটেছে। রাষ্ট্রের বিকাশ সম্ভব না গণমাধ্যমের বিস্তার ছাড়া।

তিনি বলেন, সরকার কঠোর হাতে করোনা পরবর্তী দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা করার জন্য কাজ করেছে। সেটাতে সফলও হয়েছে, সেগুলো আপনাদের মাধ্যমেই দেশের মানুষ জানবে। পত্রিকার মত সম্প্রচার মাধ্যমে ওয়েজ বোর্ড করা হবে না। সম্প্রচার মাধ্যমের কর্মীদের জন্য যে গণমাধ্যমকর্মী আইন করা হচ্ছে সেখানেই তাদের সুরক্ষার বিষয়গুলো থাকবে।

সরকারের উন্নয়নের কথা মানুষের কাছে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের সহযোগীতা চেয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের ভুলত্রুটি যেগুলো আছে সেগুলোর পাশাপাশি সরকারের উন্নয়নের কথাও গণমাধ্যমে তুলে ধরতে হবে। বিএনপি যেভাবে একতরফা সরকারের সমালোচনা করছে এতে দেশের মানুষের কাছে ভুল মেসেজ যায়। বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যেও সরকার দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখেছে।

রইস/৫