ঢাকা ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

ঘূর্ণিঝড় রিমাল প্রভাব

মৎস্য খাতে খুলনায় ক্ষতি আড়াইশ’ কোটি টাকা

খুলনা প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৭:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪ ২৯ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ফটো

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
Loss in Khulna:

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে খুলনার উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে ৩ হাজার ৬০০ পুকুর ও ৯ হাজার ১১৫ ঘেরের মাছ, চিংড়ি, কাঁকড়া ও পোনা। এতে সংশ্লিষ্টদের ক্ষতি হয়েছে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার।

খুলনা জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাতে কয়রা, পাইকগাছা, দাকোপ, বটিয়াঘাটা, ডুমুরিয়া ও রূপসা উপজেলার ৩৮টি ইউনিয়নের মৎস্য সম্পদের ক্ষতি হয়েছে। এরমধ্যে কয়রা, পাইকগাছা ও দাকোপে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

ঝড়ের তাণ্ডবে জেলায় এসব উপজেলার ৩৫৫ দশমিক ৩০ হেক্টর জমির ৩ হাজার ৬০০টি পুকুর ও ১০ হাজার ২২৩ দশমিক ৭৫ হেক্টর জমির ৯ হাজার ১১৫টি ঘের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেইসঙ্গে ১ হাজার ৫৯০ হেক্টর জমির ১ হাজার ৩৫৬টি কাঁকড়া/কুচিয়া খামার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ঝড়ে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার মৎস্য সম্পদের ক্ষতি হয়েছে। যারমধ্যে ৬৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা মূল্যের ৩ হাজার ৭৮ মেট্রিকটন মাছ, ১১৪ কোটি ৬৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ২ হাজার ৫৬৪ মেট্রিকটন চিংড়ি, ২০ কোটি ৫৭ হাজার টাকা মূল্যের ৬৩৬ মেট্রিকটন পোনা, ১৮ কোটি ৬৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ১০২ দশমিক ২০ মেট্রিকটন কাঁকড়া/কুচিয়া, ৯ কোটি ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ২৭০ মেট্রিকটন পিএল (গলদা চিংড়ির খাদ্য বিশেষ), ২০ লাখ টাকা মূল্যের ২০টি নৌকা, ট্রলার, জলযান ও ১৬ কোটি ১১ লাখ টাকার অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে।

খুলনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়দেব পাল বলেন, প্রকৃত অর্থে কত পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা নিরূপণ করা এ মুহূর্তে সম্ভব নয়। প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করা হয়েছে। এতে ধারণা করা হচ্ছে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার সাদা মাছ, চিংড়ি, পোনা, কাঁকড়া ও অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে। এ ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা কোনোক্রমে সম্ভব নয়।

এম.নাসির/২৮

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ঘূর্ণিঝড় রিমাল প্রভাব

মৎস্য খাতে খুলনায় ক্ষতি আড়াইশ’ কোটি টাকা

আপডেট সময় : ০৭:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
Loss in Khulna:

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে খুলনার উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে ৩ হাজার ৬০০ পুকুর ও ৯ হাজার ১১৫ ঘেরের মাছ, চিংড়ি, কাঁকড়া ও পোনা। এতে সংশ্লিষ্টদের ক্ষতি হয়েছে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার।

খুলনা জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাতে কয়রা, পাইকগাছা, দাকোপ, বটিয়াঘাটা, ডুমুরিয়া ও রূপসা উপজেলার ৩৮টি ইউনিয়নের মৎস্য সম্পদের ক্ষতি হয়েছে। এরমধ্যে কয়রা, পাইকগাছা ও দাকোপে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

ঝড়ের তাণ্ডবে জেলায় এসব উপজেলার ৩৫৫ দশমিক ৩০ হেক্টর জমির ৩ হাজার ৬০০টি পুকুর ও ১০ হাজার ২২৩ দশমিক ৭৫ হেক্টর জমির ৯ হাজার ১১৫টি ঘের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেইসঙ্গে ১ হাজার ৫৯০ হেক্টর জমির ১ হাজার ৩৫৬টি কাঁকড়া/কুচিয়া খামার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ঝড়ে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার মৎস্য সম্পদের ক্ষতি হয়েছে। যারমধ্যে ৬৬ কোটি ২৫ লাখ টাকা মূল্যের ৩ হাজার ৭৮ মেট্রিকটন মাছ, ১১৪ কোটি ৬৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ২ হাজার ৫৬৪ মেট্রিকটন চিংড়ি, ২০ কোটি ৫৭ হাজার টাকা মূল্যের ৬৩৬ মেট্রিকটন পোনা, ১৮ কোটি ৬৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ১০২ দশমিক ২০ মেট্রিকটন কাঁকড়া/কুচিয়া, ৯ কোটি ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ২৭০ মেট্রিকটন পিএল (গলদা চিংড়ির খাদ্য বিশেষ), ২০ লাখ টাকা মূল্যের ২০টি নৌকা, ট্রলার, জলযান ও ১৬ কোটি ১১ লাখ টাকার অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে।

খুলনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়দেব পাল বলেন, প্রকৃত অর্থে কত পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা নিরূপণ করা এ মুহূর্তে সম্ভব নয়। প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করা হয়েছে। এতে ধারণা করা হচ্ছে ২৪৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫০ হাজার টাকার সাদা মাছ, চিংড়ি, পোনা, কাঁকড়া ও অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে। এ ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা কোনোক্রমে সম্ভব নয়।

এম.নাসির/২৮