ঢাকা ১১:০৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

ব্যালট পেপার ছিনতাই, পটিয়ায় ভোটগ্রহণ বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:৪০:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪ ২০ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ফটো

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
Stealing of ballot paper:

চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের পূর্ব পিঙ্গলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এরপর ওই কেন্দ্রটিতে ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

আজ বুধবার (২৯ মে) খবর পেয়ে দুপুর ১২টার দিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বশর মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ভোট কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করেন ঘোষণা করেন এবং ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. শহীদুল্লাহ্ রায়হানকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

এ সময় পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলাউদ্দীন ভুইয়া জনী ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আরিফুল ইসলামসহ বিজিবি, র‍্যাব, পুলিশ, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, বুধবার সকাল ১০টায় পূর্ব পিঙ্গলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাসেমের নেতৃত্বে দুই থেকে আড়াইশ দোয়াত-কলমের সমর্থকরা ৯টি ব্যালট পেপারের বই বাইরে সিল মারার জন্য নিয়ে যায়। এ নয়টি ব্যালট পেপারে ৫৫২টি অব্যবহৃত পাতা ছিল বলে জানা যায়।

পরে ম্যাজিস্ট্রেট এসে কেন্দ্রটির ভোট স্থগিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন পটিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম।

এদিকে ভোট চলাকালে আনারস প্রতীকের দুই সমর্থককে কোপানোর অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার পশ্চিম হাইদগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় আনারস প্রতীকের কর্মী ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবুল হাসনাত মোহাম্মদ ফয়সাল (৪৩) ও আরেক সমর্থক মো. ওয়াসিমকে (৩৬) কুপিয়ে জখম করা হয়।

আহত আবুল হাসনাত মোহাম্মদ ফয়সাল জানান, দোয়াত-কলম প্রতীকের কর্মী ও হাইদগাঁও ইউপির বহিষ্কৃত চেয়ারম্যান বিএম জসিমের নেতৃত্বে সাকিবসহ ১০ থেকে ১২ জন দোয়াত-কলমের সমর্থকরা রাম দা ও কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে।

আহত আহত ফয়সাল জানান, আমি উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যাপক হারুনুর রশিদ প্রতীক আনারস মার্কার পক্ষে কাজ করায় তারা আমাদের কুপিয়েছে।

এম.নাসির/২৯

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

ব্যালট পেপার ছিনতাই, পটিয়ায় ভোটগ্রহণ বন্ধ

আপডেট সময় : ০৪:৪০:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
Stealing of ballot paper:

চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের পূর্ব পিঙ্গলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এরপর ওই কেন্দ্রটিতে ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

আজ বুধবার (২৯ মে) খবর পেয়ে দুপুর ১২টার দিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বশর মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ভোট কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করেন ঘোষণা করেন এবং ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. শহীদুল্লাহ্ রায়হানকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

এ সময় পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলাউদ্দীন ভুইয়া জনী ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আরিফুল ইসলামসহ বিজিবি, র‍্যাব, পুলিশ, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, বুধবার সকাল ১০টায় পূর্ব পিঙ্গলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাসেমের নেতৃত্বে দুই থেকে আড়াইশ দোয়াত-কলমের সমর্থকরা ৯টি ব্যালট পেপারের বই বাইরে সিল মারার জন্য নিয়ে যায়। এ নয়টি ব্যালট পেপারে ৫৫২টি অব্যবহৃত পাতা ছিল বলে জানা যায়।

পরে ম্যাজিস্ট্রেট এসে কেন্দ্রটির ভোট স্থগিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন পটিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম।

এদিকে ভোট চলাকালে আনারস প্রতীকের দুই সমর্থককে কোপানোর অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার পশ্চিম হাইদগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় আনারস প্রতীকের কর্মী ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবুল হাসনাত মোহাম্মদ ফয়সাল (৪৩) ও আরেক সমর্থক মো. ওয়াসিমকে (৩৬) কুপিয়ে জখম করা হয়।

আহত আবুল হাসনাত মোহাম্মদ ফয়সাল জানান, দোয়াত-কলম প্রতীকের কর্মী ও হাইদগাঁও ইউপির বহিষ্কৃত চেয়ারম্যান বিএম জসিমের নেতৃত্বে সাকিবসহ ১০ থেকে ১২ জন দোয়াত-কলমের সমর্থকরা রাম দা ও কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে।

আহত আহত ফয়সাল জানান, আমি উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যাপক হারুনুর রশিদ প্রতীক আনারস মার্কার পক্ষে কাজ করায় তারা আমাদের কুপিয়েছে।

এম.নাসির/২৯