ঢাকা ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

আজ প্রকাশ হচ্ছে না প্রাথমিকের সংশোধিত বৃত্তির ফল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:০৮:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩ ১১৭ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাথমিকের স্থগিত করা বৃত্তির ফলাফল আজ বুধবার পুনরায় প্রকাশ করার কথা থাকলেও তা আজ হচ্ছে না বলে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। তবে এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে কেউ কিছুই জানায়নি।

এদিকে এক সূত্র জানিয়েছে, রাতে ফল প্রকাশ করার জন্য চেষ্টা চলছে। বুধবার (০১ মার্চ) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, যতদূর জানতে পেরেছি আজ প্রাথমিকের স্থগিত করা বৃত্তির সংশোধিত ফল হচ্ছে না। ভুল-ত্রুটি সংশোধনের কাজ চলছে বলে অধিদপ্তর থেকে জানতে পেরেছি।

মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বৃত্তির ফলাফল প্রকাশ করেন। প্রকাশের চার ঘণ্টার মাথায় ফলাফল স্থগিত করা হয়।

ওই দিন সন্ধ্যায় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াতের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কারিগরি ত্রুটির কারণে প্রাথমিক বৃত্তি-২০২২ এর ফলাফল পুনঃযাচাই এর প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হওয়ায় তা স্থগিত করা হলো। বুধবার (০১ মার্চ) বিকেলে পুনরায় এ ফল প্রকাশিত হবে এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হবে।

এর আগে প্রকাশিত ফলাফলে ৮২ হাজার ৩৮৩ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়েছে বলে জানানো হয়। এরমধ‍্যে ট‍্যালেন্টপুলে ৩৩ হাজার জন, যা আগে ছিল ২২ হাজার জন এবং সাধারণ কোটায় ৪৯ হাজার ৩৮৩ জন, যা আগে ছিল ৩৩ হাজার জন। বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত বৃত্তি পাবে।

২০২০ ও ২০২১ সালে কোভিড-১৯ পরস্থিতিরি কারণে প্রাথমকি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা না হওয়ায় প্রাথমিক বৃত্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। ২০২২ সালের ২৮ নভেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় ২০২২ সাল থেকে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর একযোগে সারা দেশে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পঞ্চম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে মেধাক্রম অনুসারে ২০ শতাংশ শিক্ষার্থী নিয়ে বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলা, প্রাথমিক গণিত, ইংরেজি ও প্রাথমিক বিজ্ঞান এ চারটি বিষয়ে বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মোট নম্বর ছিল ১০০ এবং পরীক্ষার সময় ছিল দুই ঘণ্টা।

এবারের বৃত্তি পরীক্ষায় চার লাখ ৮৩ হাজার ৭৫৯ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

রইস/১

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আজ প্রকাশ হচ্ছে না প্রাথমিকের সংশোধিত বৃত্তির ফল

আপডেট সময় : ০১:০৮:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাথমিকের স্থগিত করা বৃত্তির ফলাফল আজ বুধবার পুনরায় প্রকাশ করার কথা থাকলেও তা আজ হচ্ছে না বলে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। তবে এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে কেউ কিছুই জানায়নি।

এদিকে এক সূত্র জানিয়েছে, রাতে ফল প্রকাশ করার জন্য চেষ্টা চলছে। বুধবার (০১ মার্চ) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, যতদূর জানতে পেরেছি আজ প্রাথমিকের স্থগিত করা বৃত্তির সংশোধিত ফল হচ্ছে না। ভুল-ত্রুটি সংশোধনের কাজ চলছে বলে অধিদপ্তর থেকে জানতে পেরেছি।

মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বৃত্তির ফলাফল প্রকাশ করেন। প্রকাশের চার ঘণ্টার মাথায় ফলাফল স্থগিত করা হয়।

ওই দিন সন্ধ্যায় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াতের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কারিগরি ত্রুটির কারণে প্রাথমিক বৃত্তি-২০২২ এর ফলাফল পুনঃযাচাই এর প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হওয়ায় তা স্থগিত করা হলো। বুধবার (০১ মার্চ) বিকেলে পুনরায় এ ফল প্রকাশিত হবে এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করা হবে।

এর আগে প্রকাশিত ফলাফলে ৮২ হাজার ৩৮৩ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়েছে বলে জানানো হয়। এরমধ‍্যে ট‍্যালেন্টপুলে ৩৩ হাজার জন, যা আগে ছিল ২২ হাজার জন এবং সাধারণ কোটায় ৪৯ হাজার ৩৮৩ জন, যা আগে ছিল ৩৩ হাজার জন। বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত বৃত্তি পাবে।

২০২০ ও ২০২১ সালে কোভিড-১৯ পরস্থিতিরি কারণে প্রাথমকি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা না হওয়ায় প্রাথমিক বৃত্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। ২০২২ সালের ২৮ নভেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় ২০২২ সাল থেকে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর একযোগে সারা দেশে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পঞ্চম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে মেধাক্রম অনুসারে ২০ শতাংশ শিক্ষার্থী নিয়ে বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলা, প্রাথমিক গণিত, ইংরেজি ও প্রাথমিক বিজ্ঞান এ চারটি বিষয়ে বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মোট নম্বর ছিল ১০০ এবং পরীক্ষার সময় ছিল দুই ঘণ্টা।

এবারের বৃত্তি পরীক্ষায় চার লাখ ৮৩ হাজার ৭৫৯ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

রইস/১