ঢাকা ০৯:১৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

শনিবার শপথ নিচ্ছেন মোদি

ডেস্ক প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১০:২৭:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে

শনিবার শপথ নিচ্ছেন মোদি

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

Modi is taking oath :  নতুন সরকার গঠনের জন্য রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে দেখা করার পর তিনি পদত্যাগপত্র জমা দেন। নরেন্দ্র মোদি বুধবার পদত্যাগ করেছেন কারণ তার সহযোগী দলগুলি বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সাথে সরকার গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে দেখা করেছেন। এ সময় তিনি নতুন সরকার গঠনের লক্ষ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে পুরো মন্ত্রিসভাসহ পদত্যাগপত্র জমা দেন। যাইহোক, রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু নরেন্দ্র মোদীকে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত সরকার পরিচালনা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার ভারতের ৫৪৩ আসনের লোকসভার চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এই নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। দেশে সরকার গঠনের জন্য ২৭২টি আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রয়োজন, কিন্তু বিজেপি নিজেরাই ২৪০টি আসন জিতেছে। ফলে এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি।

শনিবার শপথ নিচ্ছেন মোদি

এখন বিজেপিকে সরকার গঠনের জন্য এনডিএ জোটের শরিকদের ৫৩ টি আসনের উপর নির্ভর করতে হবে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট 293টি আসন জিতেছে। অন্যদিকে, দেশটির বিরোধী কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট ভারত ২৩৩টি আসন জিতেছে। এর মধ্যে কংগ্রেস একাই পেয়েছে ৯৯টি আসন।

লোকসভা আসন গণনা অনুসারে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, এনডিএ কেন্দ্রে সরকার গঠন করবে। তবে নির্বাচনের ফল ঘোষণার একদিন পরই দিল্লিতে এখন মেরুকরণের খেলা চলছে। দুই দলই সরকার ভাঙতে তৎপর হয়ে উঠেছে।

বুধবার সকালে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে আলোচনা করতে বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদি। ওই বৈঠকে দেশের পরবর্তী সরকার গঠনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বলে বৈঠকের বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে।

এনডিটিভি জানায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে সকাল সাড়ে ১১টায় বৈঠক শুরু হয়। এটি ছিল মোদির মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক। এদিকে জোটের বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন সিনিয়র এনডিএ নেতারা। বিকেল ৪টায় এনডিএ জোটের বৈঠক হওয়ার কথা। সেই বৈঠকে এনডিএ নেতারা সরকার গঠনের বিস্তারিত আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

বিহার জনতা দলের (ইউনাইটেড) প্রধান এবং বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার এবং অন্ধ্রপ্রদেশ তেলেগু দেশম পার্টির সভাপতি চন্দ্রবাবু নাইডু এনডিএ বৈঠকে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

মিত্ররা ইতিমধ্যেই নরেন্দ্র মোদির তৃতীয় মন্ত্রিসভার জন্য বিজেপির কাছে তাদের দাবি পাঠাতে শুরু করেছে, দেশের একাধিক রাজনৈতিক সূত্র জানিয়েছে। জনতা দল (ইউনাইটেড) মোদির মন্ত্রিসভায় তিনটি আসন চেয়েছে। এছাড়া জোটের শরিক একনাথ শিন্ডের শিবসেনা গোষ্ঠী মন্ত্রিসভায় একটি এবং রাজ্যে দুটি আসন চেয়েছে।

সূত্র: এনডিটিভি, টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

শনিবার শপথ নিচ্ছেন মোদি

আপডেট সময় : ১০:২৭:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪

Modi is taking oath :  নতুন সরকার গঠনের জন্য রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে দেখা করার পর তিনি পদত্যাগপত্র জমা দেন। নরেন্দ্র মোদি বুধবার পদত্যাগ করেছেন কারণ তার সহযোগী দলগুলি বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সাথে সরকার গঠনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে দেখা করেছেন। এ সময় তিনি নতুন সরকার গঠনের লক্ষ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে পুরো মন্ত্রিসভাসহ পদত্যাগপত্র জমা দেন। যাইহোক, রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু নরেন্দ্র মোদীকে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত সরকার পরিচালনা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার ভারতের ৫৪৩ আসনের লোকসভার চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এই নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। দেশে সরকার গঠনের জন্য ২৭২টি আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রয়োজন, কিন্তু বিজেপি নিজেরাই ২৪০টি আসন জিতেছে। ফলে এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি।

শনিবার শপথ নিচ্ছেন মোদি

এখন বিজেপিকে সরকার গঠনের জন্য এনডিএ জোটের শরিকদের ৫৩ টি আসনের উপর নির্ভর করতে হবে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট 293টি আসন জিতেছে। অন্যদিকে, দেশটির বিরোধী কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট ভারত ২৩৩টি আসন জিতেছে। এর মধ্যে কংগ্রেস একাই পেয়েছে ৯৯টি আসন।

লোকসভা আসন গণনা অনুসারে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, এনডিএ কেন্দ্রে সরকার গঠন করবে। তবে নির্বাচনের ফল ঘোষণার একদিন পরই দিল্লিতে এখন মেরুকরণের খেলা চলছে। দুই দলই সরকার ভাঙতে তৎপর হয়ে উঠেছে।

বুধবার সকালে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে আলোচনা করতে বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদি। ওই বৈঠকে দেশের পরবর্তী সরকার গঠনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বলে বৈঠকের বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে।

এনডিটিভি জানায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে সকাল সাড়ে ১১টায় বৈঠক শুরু হয়। এটি ছিল মোদির মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক। এদিকে জোটের বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন সিনিয়র এনডিএ নেতারা। বিকেল ৪টায় এনডিএ জোটের বৈঠক হওয়ার কথা। সেই বৈঠকে এনডিএ নেতারা সরকার গঠনের বিস্তারিত আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

বিহার জনতা দলের (ইউনাইটেড) প্রধান এবং বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার এবং অন্ধ্রপ্রদেশ তেলেগু দেশম পার্টির সভাপতি চন্দ্রবাবু নাইডু এনডিএ বৈঠকে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

মিত্ররা ইতিমধ্যেই নরেন্দ্র মোদির তৃতীয় মন্ত্রিসভার জন্য বিজেপির কাছে তাদের দাবি পাঠাতে শুরু করেছে, দেশের একাধিক রাজনৈতিক সূত্র জানিয়েছে। জনতা দল (ইউনাইটেড) মোদির মন্ত্রিসভায় তিনটি আসন চেয়েছে। এছাড়া জোটের শরিক একনাথ শিন্ডের শিবসেনা গোষ্ঠী মন্ত্রিসভায় একটি এবং রাজ্যে দুটি আসন চেয়েছে।

সূত্র: এনডিটিভি, টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া।