ঢাকা ০৫:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

বৈশ্বিক স্থিতিশীলতার জন্য চীন হুমকি : ঋষি সুনাক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৭:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩ ১১৯ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

‘চীন এমন একটি দেশ যার নীতি আমাদের থেকে পুরোপুরি ভিন্ন। চীন বৈশ্বিক স্থিতিশীলতার জন্য একটি হুমকি’ আর বিষয়টি যুক্তরাজ্যের গুরুত্ব সহকারে দেখা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

সোমবার (১৩ মার্চ) যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম বিবিসির সঙ্গে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঋষি সুনাক আরও বলেছেন, আমি সশস্ত্র বাহিনীর ব্যয় বাড়াচ্ছি কারণ ‘বিশ্ব এখন আরও অস্থিতিশীল’ হয়ে পড়েছে এবং ‘আমাদের নিরাপত্তা হুমকি বেড়েছে।’

আগামী দুই বছরের মধ্যে সামরিক ব্যয় প্রায় ৫ বিলিয়ন ডলার বৃদ্ধি করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি আলবানিসের সঙ্গে সাবমেরিন চুক্তি করতে ক্যালিফোর্নিয়া গেছেন ঋষি। সেখানেই বিবিসির সঙ্গ কথা বলেছেন তিনি।

‘আর এ কারণে এ বিষয়টি নিয়ে সতর্ক থাকার ক্ষেত্রে আমরা সঠিক এবং আমরা নিজেদের সুরক্ষায় ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমাদের নীতির পক্ষে দাঁড়াচ্ছি এবং নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করছি।’

ঋষি সুনাক জানিয়েছেন, চীনের তৈরিকৃত চ্যালেঞ্জগুলো গুরুত্ব সহকারে নিয়েছেন তারা এবং এটি মোকাবিলায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে স্পর্শকাতর বিষয়গুলোর ওপর চীনের বিনিয়োগ বন্ধ করা।

এছাড়া মোট জিডিপির ২ দশমিক ৫ শতাংশ সামরিক খাতে ব্যয় করার ঘোষণা দিয়েছে ঋষি সুনাক সরকার। তবে কবে থেকে এটি কার্যকর করা হবে এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট কোনো সময়-সীমা ঠিক করেনি তারা। বিবিসির পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়, সময়-সীমা নির্ধারণ না করে শুধুমাত্র ঘোষণার কোনো মূল্য আছে কিনা। এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক বলেছেন, বর্তমানে ইউরোপে সামরিক খাতে যুক্তরাজ্যই সবচেয়ে বেশি অর্থ খরচ করছে এবং এটি অব্যাহত থাকবে। আর জিডিপির ২ দশমিক ৫ শতাংশ সামরিক খাতে ব্যয় করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেটিও পূরণ করা হবে।

এম.নাসির/১৪

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বৈশ্বিক স্থিতিশীলতার জন্য চীন হুমকি : ঋষি সুনাক

আপডেট সময় : ০৭:২৭:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩

‘চীন এমন একটি দেশ যার নীতি আমাদের থেকে পুরোপুরি ভিন্ন। চীন বৈশ্বিক স্থিতিশীলতার জন্য একটি হুমকি’ আর বিষয়টি যুক্তরাজ্যের গুরুত্ব সহকারে দেখা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

সোমবার (১৩ মার্চ) যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম বিবিসির সঙ্গে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঋষি সুনাক আরও বলেছেন, আমি সশস্ত্র বাহিনীর ব্যয় বাড়াচ্ছি কারণ ‘বিশ্ব এখন আরও অস্থিতিশীল’ হয়ে পড়েছে এবং ‘আমাদের নিরাপত্তা হুমকি বেড়েছে।’

আগামী দুই বছরের মধ্যে সামরিক ব্যয় প্রায় ৫ বিলিয়ন ডলার বৃদ্ধি করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি আলবানিসের সঙ্গে সাবমেরিন চুক্তি করতে ক্যালিফোর্নিয়া গেছেন ঋষি। সেখানেই বিবিসির সঙ্গ কথা বলেছেন তিনি।

‘আর এ কারণে এ বিষয়টি নিয়ে সতর্ক থাকার ক্ষেত্রে আমরা সঠিক এবং আমরা নিজেদের সুরক্ষায় ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমাদের নীতির পক্ষে দাঁড়াচ্ছি এবং নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করছি।’

ঋষি সুনাক জানিয়েছেন, চীনের তৈরিকৃত চ্যালেঞ্জগুলো গুরুত্ব সহকারে নিয়েছেন তারা এবং এটি মোকাবিলায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে স্পর্শকাতর বিষয়গুলোর ওপর চীনের বিনিয়োগ বন্ধ করা।

এছাড়া মোট জিডিপির ২ দশমিক ৫ শতাংশ সামরিক খাতে ব্যয় করার ঘোষণা দিয়েছে ঋষি সুনাক সরকার। তবে কবে থেকে এটি কার্যকর করা হবে এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট কোনো সময়-সীমা ঠিক করেনি তারা। বিবিসির পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়, সময়-সীমা নির্ধারণ না করে শুধুমাত্র ঘোষণার কোনো মূল্য আছে কিনা। এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক বলেছেন, বর্তমানে ইউরোপে সামরিক খাতে যুক্তরাজ্যই সবচেয়ে বেশি অর্থ খরচ করছে এবং এটি অব্যাহত থাকবে। আর জিডিপির ২ দশমিক ৫ শতাংশ সামরিক খাতে ব্যয় করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেটিও পূরণ করা হবে।

এম.নাসির/১৪