ঢাকা ০৫:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

পশ্চিমবঙ্গে অ্যাডিনোভাইরাসে আরও তিন শিশুর মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৩৪:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩ ১০৭ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ্যাডিনোভাইরাসে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আরও তিন শিশু মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত মারা যায় ওই তিন শিশু। এদের সবাই জ্বর ও শ্বাসকষ্টের উপসর্গ নিয়ে কলকাতার বি সি রায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল।

অ্যাডিনোভাইরাসে মৃত্যুর বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকার আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্য না দিলেও বেসরকারি নানা সূত্র জানিয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে শনিবার (৪ মার্চ) পর্যন্ত শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণে (অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইনফেকশন) রাজ্যে মৃত শিশুর সংখ্যা ৮২।

তবে পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানান, শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ শুধু অ্যাডিনোর জন্য হচ্ছে তেমন নয়। যে কোনো ভাইরাস সংক্রমণেই তা হতে পারে।

অন্যদিকে, শিশু রোগ চিকিৎসকরা বলছেন, যেসব বাচ্চা এরই মধ্যে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে, তারা ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে। তবে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন শিশুদের মধ্যে এখনও মৃত্যু ঘটছে। এক চিকিৎসকের মতে, নতুন করে সঙ্কটাপন্ন রোগী আসার সংখ্যা কমেছে। তাই, আর কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলেই আশা করেন তিনি।

রইস/৫

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

পশ্চিমবঙ্গে অ্যাডিনোভাইরাসে আরও তিন শিশুর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৮:৩৪:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অ্যাডিনোভাইরাসে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আরও তিন শিশু মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত মারা যায় ওই তিন শিশু। এদের সবাই জ্বর ও শ্বাসকষ্টের উপসর্গ নিয়ে কলকাতার বি সি রায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল।

অ্যাডিনোভাইরাসে মৃত্যুর বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকার আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্য না দিলেও বেসরকারি নানা সূত্র জানিয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে শনিবার (৪ মার্চ) পর্যন্ত শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণে (অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইনফেকশন) রাজ্যে মৃত শিশুর সংখ্যা ৮২।

তবে পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানান, শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ শুধু অ্যাডিনোর জন্য হচ্ছে তেমন নয়। যে কোনো ভাইরাস সংক্রমণেই তা হতে পারে।

অন্যদিকে, শিশু রোগ চিকিৎসকরা বলছেন, যেসব বাচ্চা এরই মধ্যে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে, তারা ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে। তবে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন শিশুদের মধ্যে এখনও মৃত্যু ঘটছে। এক চিকিৎসকের মতে, নতুন করে সঙ্কটাপন্ন রোগী আসার সংখ্যা কমেছে। তাই, আর কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলেই আশা করেন তিনি।

রইস/৫