ঢাকা ০১:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

উত্তর কোরিয়ার নতুন অস্ত্রের পরীক্ষা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১৫:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩ ১১৮ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

উত্তর কোরিয়া নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে একটি সাবমেরিন থেকে দু’টি কৌশলগত ক্রুজ মিসাইল ছুড়েছে। পাঁচ বছর পর প্রথমবার মতো যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া। এর কয়েক ঘণ্টা আগে মিসাইল ছুড়ল পিয়ংইয়ং। খবর আল জাজিরা’র।

সোমবার (১৩ মার্চ) উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় মিডিয়া ওই মিসাইল পরীক্ষার কথা জানিয়েছে। এর কিছুদিন আগে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সামনেই বেশ কিছু অস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়। তখন তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে প্রচেষ্টা আরও জোরালো করতে ‘পাগলের মতো যুদ্ধের প্রস্তুতি’ নেয়ার নির্দেশ দেন।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানিয়েছে, ‘সাম্রাজ্যবাদী যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার পুতুল শক্তির’ সামরিক প্রচেষ্টাকে ব্যাহত করতে ‘জোরালো শক্তি প্রয়োগকে’ সমস্যা সমাধানের রাস্তা হিসেবে বেছে নিয়েছে পিয়ংইয়ং। এছাড়া ক্রুজ মিসাইলকে পরমাণু ওয়্যারহেড দিয়ে সজ্জিত করতে চায় উত্তর কোরিয়া।

যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার এই সামরিক প্রদর্শনীকে আক্রমণ হিসেবে বিবেচনা করে পিয়ংইয়ং। এজন্যই নিজেদের আত্মরক্ষায় পরমাণু অস্ত্র এবং মিসাইল কর্মসূচি জরুরি বলেও দাবি করে দেশটি।

‘ফ্রিডম শিল্ড’ শিরোনামে এই সামরিক মহড়া সোমবার দিন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়। ২০১৮ সালের পর এই প্রথম এত ব্যাপক পরিসরে সামরিক মহড়া চালাচ্ছে দেশ দু’টি।

এম.নাসির/১৩

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

উত্তর কোরিয়ার নতুন অস্ত্রের পরীক্ষা

আপডেট সময় : ০৭:১৫:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ মার্চ ২০২৩

উত্তর কোরিয়া নিজেদের শক্তি প্রদর্শনে একটি সাবমেরিন থেকে দু’টি কৌশলগত ক্রুজ মিসাইল ছুড়েছে। পাঁচ বছর পর প্রথমবার মতো যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া। এর কয়েক ঘণ্টা আগে মিসাইল ছুড়ল পিয়ংইয়ং। খবর আল জাজিরা’র।

সোমবার (১৩ মার্চ) উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় মিডিয়া ওই মিসাইল পরীক্ষার কথা জানিয়েছে। এর কিছুদিন আগে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সামনেই বেশ কিছু অস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়। তখন তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে প্রচেষ্টা আরও জোরালো করতে ‘পাগলের মতো যুদ্ধের প্রস্তুতি’ নেয়ার নির্দেশ দেন।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানিয়েছে, ‘সাম্রাজ্যবাদী যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার পুতুল শক্তির’ সামরিক প্রচেষ্টাকে ব্যাহত করতে ‘জোরালো শক্তি প্রয়োগকে’ সমস্যা সমাধানের রাস্তা হিসেবে বেছে নিয়েছে পিয়ংইয়ং। এছাড়া ক্রুজ মিসাইলকে পরমাণু ওয়্যারহেড দিয়ে সজ্জিত করতে চায় উত্তর কোরিয়া।

যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার এই সামরিক প্রদর্শনীকে আক্রমণ হিসেবে বিবেচনা করে পিয়ংইয়ং। এজন্যই নিজেদের আত্মরক্ষায় পরমাণু অস্ত্র এবং মিসাইল কর্মসূচি জরুরি বলেও দাবি করে দেশটি।

‘ফ্রিডম শিল্ড’ শিরোনামে এই সামরিক মহড়া সোমবার দিন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়। ২০১৮ সালের পর এই প্রথম এত ব্যাপক পরিসরে সামরিক মহড়া চালাচ্ছে দেশ দু’টি।

এম.নাসির/১৩