ঢাকা ০১:২৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

ইকুয়েডর-পেরুতে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ১৪

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩ ১৪৯১ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডর ও পেরুতে ৬ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। এতে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ৩৮০ জনের বেশি মানুষ।

স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ মার্চ) ইকুয়েডরের উপকূলীয় অঞ্চল এবং পেরুর উত্তরাঞ্চলে ভূমিকম্প আঘাত হানলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। হতাহতদের বেশিরভাগই ইকুয়েডরের এল ওরো প্রদেশের বাসিন্দা।

ইকুয়েডরের ভূমিকম্প অনুভূত অঞ্চলে বেশ কিছু বাড়ি, স্কুল ও চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রের অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে আরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। রোববার (১৯ই মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

দেশটির জিওফিজিক্স ইনস্টিটিউট জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পের পরের কয়েক ঘণ্টায় দুই দফায় দুর্বল আফটারশক অনুভূত হয়েছে। তবে ভূমিকম্পের কারণে সুনামি হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই বলে জানিয়েছে তারা।

এদিকে, পেরুর উত্তরাঞ্চলে ভূমিকম্প অনুভূত হলেও তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল মূলত গুয়াস প্রদেশের বালাও শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে ভূপৃষ্ঠের ৬৬ দশমিক ৪ কিলোমিটার গভীরতায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ইকুয়েডর-পেরুতে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ১৪

আপডেট সময় : ০৯:৪৩:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডর ও পেরুতে ৬ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। এতে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ৩৮০ জনের বেশি মানুষ।

স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ মার্চ) ইকুয়েডরের উপকূলীয় অঞ্চল এবং পেরুর উত্তরাঞ্চলে ভূমিকম্প আঘাত হানলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। হতাহতদের বেশিরভাগই ইকুয়েডরের এল ওরো প্রদেশের বাসিন্দা।

ইকুয়েডরের ভূমিকম্প অনুভূত অঞ্চলে বেশ কিছু বাড়ি, স্কুল ও চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রের অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে আরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। রোববার (১৯ই মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

দেশটির জিওফিজিক্স ইনস্টিটিউট জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পের পরের কয়েক ঘণ্টায় দুই দফায় দুর্বল আফটারশক অনুভূত হয়েছে। তবে ভূমিকম্পের কারণে সুনামি হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই বলে জানিয়েছে তারা।

এদিকে, পেরুর উত্তরাঞ্চলে ভূমিকম্প অনুভূত হলেও তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল মূলত গুয়াস প্রদেশের বালাও শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে ভূপৃষ্ঠের ৬৬ দশমিক ৪ কিলোমিটার গভীরতায়।