ঢাকা ০৫:৪৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

‘অবৈধ প্রবেশ ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের পরিকল্পনা খুবই উদ্বেগজনক’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫৩:৫৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩ ১১৭ বার পড়া হয়েছে
নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে যুক্তরাজ্য সরকারের প্রস্তাবিত আইনকে ‘খুবই উদ্বেগজনক’ বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা-ইউএনএইচসিআর। এমনকি জরুরিভিত্তিতে আশ্রয় দরকার এমন অভিবাসীদেরকেও যুক্তরাজ্য আটকে দেবে বলে মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অবৈধভাবে ব্রিটেনে আসা অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে নতুন আইন প্রস্তাবনা দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। মঙ্গলবার (৭ই মার্চ) পার্লামেন্টে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, যারা প্রবেশের চেষ্টা করবে তাদেরকে আটক করে দ্রুত নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। আর যদি তাদের দেশ নিরাপদ না হয় তবে পাঠানো হবে রুয়ান্ডায়। অন্যদিকে, আইনটি বাস্তবায়ন করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

প্রতিবছর হাজার হাজার অভিবাসী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় করে বিপদজনক ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে ব্রিটেনে প্রবেশ করে। গত দুইবছরে এই হার পাঁচগুণ বেড়েছে। চ্যানেল পাড়ি দিতে গিয়ে অতল সাগরে হারিয়েও গেছেন অনেকে।

এ সিদ্ধান্তে বিরোধী দল ও মানবাধিকার সংস্থাগুলোর তোপের মুখে পড়েছে দেশটির সরকার। ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অভিবাসী সংকটে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে আইনের নামে প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে বর্তমান সরকার।

ফলে ব্রিটিশ সরকারের প্রস্তাবিত এমন নতুন অভিবাসী আইন নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। এর মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন হতে পারে। ইংলিশ চ্যানেল বন্ধের কোনো প্রয়োজন নেই বলেও জানায় সংস্থাটি।

রইস/৯

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

‘অবৈধ প্রবেশ ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের পরিকল্পনা খুবই উদ্বেগজনক’

আপডেট সময় : ১১:৫৩:৫৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে যুক্তরাজ্য সরকারের প্রস্তাবিত আইনকে ‘খুবই উদ্বেগজনক’ বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা-ইউএনএইচসিআর। এমনকি জরুরিভিত্তিতে আশ্রয় দরকার এমন অভিবাসীদেরকেও যুক্তরাজ্য আটকে দেবে বলে মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, অবৈধভাবে ব্রিটেনে আসা অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকাতে নতুন আইন প্রস্তাবনা দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। মঙ্গলবার (৭ই মার্চ) পার্লামেন্টে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, যারা প্রবেশের চেষ্টা করবে তাদেরকে আটক করে দ্রুত নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। আর যদি তাদের দেশ নিরাপদ না হয় তবে পাঠানো হবে রুয়ান্ডায়। অন্যদিকে, আইনটি বাস্তবায়ন করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক।

প্রতিবছর হাজার হাজার অভিবাসী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় করে বিপদজনক ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে ব্রিটেনে প্রবেশ করে। গত দুইবছরে এই হার পাঁচগুণ বেড়েছে। চ্যানেল পাড়ি দিতে গিয়ে অতল সাগরে হারিয়েও গেছেন অনেকে।

এ সিদ্ধান্তে বিরোধী দল ও মানবাধিকার সংস্থাগুলোর তোপের মুখে পড়েছে দেশটির সরকার। ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অভিবাসী সংকটে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে আইনের নামে প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে বর্তমান সরকার।

ফলে ব্রিটিশ সরকারের প্রস্তাবিত এমন নতুন অভিবাসী আইন নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। এর মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন হতে পারে। ইংলিশ চ্যানেল বন্ধের কোনো প্রয়োজন নেই বলেও জানায় সংস্থাটি।

রইস/৯