ঢাকা ০১:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মারামারি: জামিন পাননি কাজল

আদালত প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪ ৮৩ বার পড়া হয়েছে

- ফাইল ছবি

নিউজ ফর জাস্টিস অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
Barrister Ruhul Quddus Kajal:
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে, হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনায় করা মামলায় নীল প্যানেলের সম্পাদক প্রার্থী, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলের জামিন মঞ্জুর করেননি আদালত। ১৮ মার্চ, ষষ্ঠ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মোরশেদ আলমের আদালতে, জামিন চেয়ে আবেদন করেন কাজলের আইনজীবীরা।
এর আগে গত ১০ মার্চ, তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ। অপরদিকে, তার আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পরে তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে, বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
মামলায় সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচনে, সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি, বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত নীল প্যানেলের সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলসহ ২০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
মামলায় অপর আসামিরা হলেন- ব্যারিস্টার ওসমান, অ্যাডভোকেট মো. জাকির হোসেন ওরফে মাসুদ (৫৫), অ্যাডভোকেট শাকিলা রৌশন, অ্যাডভোকেট কাজী বশির আহম্মেদ, অ্যাডভোকেট তুষার, অ্যাডভোকেট আরিফ, অ্যাডভোকেট সুমন, ব্যারিস্টার চৌধুরী মৌসুমী ফাতেমা (কবিতা), রবিউল, সাইদুর রহমান জুয়েল (৪০), অলিউর, যুবলীগ নেতা-জয়দেব নন্দী, অ্যাডভোকেট তরিকুল ও অ্যাডভোকেট সোহাগ, মাইন উদ্দিন রানা, মশিউর রহমান সুমন, কামাল হোসেন ও আসলাম রাইয়ান।
/আবদুর রহমান খান/

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মারামারি: জামিন পাননি কাজল

আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪
Barrister Ruhul Quddus Kajal:
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে, হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনায় করা মামলায় নীল প্যানেলের সম্পাদক প্রার্থী, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলের জামিন মঞ্জুর করেননি আদালত। ১৮ মার্চ, ষষ্ঠ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মোরশেদ আলমের আদালতে, জামিন চেয়ে আবেদন করেন কাজলের আইনজীবীরা।
এর আগে গত ১০ মার্চ, তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ। অপরদিকে, তার আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পরে তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে, বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
মামলায় সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচনে, সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি, বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত নীল প্যানেলের সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলসহ ২০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
মামলায় অপর আসামিরা হলেন- ব্যারিস্টার ওসমান, অ্যাডভোকেট মো. জাকির হোসেন ওরফে মাসুদ (৫৫), অ্যাডভোকেট শাকিলা রৌশন, অ্যাডভোকেট কাজী বশির আহম্মেদ, অ্যাডভোকেট তুষার, অ্যাডভোকেট আরিফ, অ্যাডভোকেট সুমন, ব্যারিস্টার চৌধুরী মৌসুমী ফাতেমা (কবিতা), রবিউল, সাইদুর রহমান জুয়েল (৪০), অলিউর, যুবলীগ নেতা-জয়দেব নন্দী, অ্যাডভোকেট তরিকুল ও অ্যাডভোকেট সোহাগ, মাইন উদ্দিন রানা, মশিউর রহমান সুমন, কামাল হোসেন ও আসলাম রাইয়ান।
/আবদুর রহমান খান/